ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২ আষাঢ় ১৪২৮, ১৭ জুন, ২০২১
Mukto Sangbad Protidin

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে বেআইনীভাবে আটক ও মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন


কাজল, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: বৃহস্পতিবার, ২০ মে, ২০২১, ১১:৪৫
সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে বেআইনীভাবে আটক ও মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন
ছবি: মুক্তসংবাদ প্রতিদিন

 

বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব হবিগঞ্জ আহ্বায়ক কমিটি কর্তৃক অদ্য ২০ মে' ২০২১ ইং সকাল ১০ টায় সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে বেআইনীভাবে আটক ও মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 

মুক্তসংবাদ প্রতিদিন হবিগঞ্জ জেলার প্রতিনিধি সাংবাদিক শেখ আব্দুল কাদির কাজলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানব বন্ধনে অংশ নেন বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের জেলার যুগ্ম আহ্বায়ক জনাব মোজাহিদ হোসেন, জনাব মন্জুরুল হক, জনাব মুজিবুর রহমান খান, সাংবাদিক মীর দুলাল সদস্য, শাহেনা আক্তারসহ অন্যান্য সাংবাদিকবৃন্দ।

মুক্তসংবাদ প্রতিদিন / কে. আলম

পারিবারিক আর্থিক স্বচ্ছলতা অর্জনের লক্ষ্যে পথ হারাচ্ছে দেশের যুব ও কিশোররা


কাজল, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
মঙ্গলবার, ০১ জুন, ২০২১, ০৬:১৪
পারিবারিক আর্থিক স্বচ্ছলতা অর্জনের লক্ষ্যে পথ হারাচ্ছে দেশের যুব ও কিশোররা

শেখ মো: আব্দুল কাদির কাজল

 

যুব ও কিশোররা সময় নষ্ট করে চলেছে- চায়ের ষ্টলসহ বিভিন্ন রকম খেলার আড্ডায়। তাদের পারিবারিক সমন্বয়হীতায়, হিরোইজম, অর্থের মোহ, প্রযুক্তির বেপরোয়া ব্যবহার, বেপরোয়া বিভিন্ন নেশায় আসক্ত হয়ে পারিবারিক জীবনে মহাক্ষতির সম্মুখিন হতে যাচ্ছে। 

দেশের যুব ও কিশোরদের প্রভাবশালীরা তাদের ভবিষ্যত নিয়ে না ভেবে তাদের ব্যক্তিস্বার্থে ব্যবহার করে চলেছেন। দেশের বিভিন্ন গ্রাম্য হাটবাজার পরিদর্শনকালে যাহা চোখে পড়ে-চায়ের ষ্টলগুলিতে, ক্রাম বোর্ড, লুডু গুডির খেলায় (টাকা দিয়ে) আসক্ত হয়ে মূল্যবান সময়টুকু নষ্ট করে। আবার এদের অনেকেই উচ্চ বিলাসী জীবন গঠনের লক্ষ্যে- চুরি, ডাকাতি, প্রতারণা, ঠকবাজিসহ নানান অপকর্মে জড়িয়ে পড়েছে। 

হেরোইজমে জড়িয়ে পড়ার পেছনে দায়ী কিছু দেশদ্রোহী বিপদগামী ব্যক্তি ও আন্তর্জাতিক চক্র। দেশে এমন কোন সমাজ বা প্রতিষ্ঠান কিশোরদের সুন্দর ভবিষ্যত গড়ে তুলতে, তাদের প্রশিক্ষণ দিয়ে সুন্দর আগামীর দিকে ঠেলে দেয়ার কোন উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছেনা।

গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া থেকে দেশ অনেক দূরে। ব্যক্তি কেন্দ্রীক নেতৃত্ব, পরিবারতান্ত্রিক কর্তৃত্ব বহাল তবিয়তে রাখতে- দেশের কিশোর ও যুব সমাজকে ব্যবহার করা হচ্ছে। পারিবারিকভাবেও এরা নিগৃহিত কারণ অনেক অভিভাবকগণ তাদের সঠিক খোঁজখবর রাখতে না পারায় তারা বিপথে যাচ্ছে। 

আজ গডফাদার নামে ব্যক্তিরা তাদের নিজস্ব বলয়ে এক বাহিনী গড়ে তুলে তারা প্রচলিত আইন-কানুনকে বৃদ্ধাঙ্গলি দেখিয়ে, আবার অনেক ক্ষেত্রে টাকা পয়সা দিয়ে ম্যানেজ করে তারা অন্যের সম্পদ জোরপূর্বক আত্বসাৎ করে ধরাকে সরাজ্ঞান করে সমাজকে কুঁড়ে কুঁড়ে খাচ্ছে। 

এ প্রতিবেদনের লেখক আমি শেখ মো: আব্দুল কাদির কাজল। আমার জমিও জবর দখলকারীরা ভোগ বিলাস করে চলেছে যারা, তারা কি পুরস্কার পাওয়ার যোগ্য? ঐ এলাকায় কি নের্তৃবৃন্দের অভাব? অভাব নয়- কিন্তু জুলুমবাজরা সামাজিক সিদ্ধান্তের তোয়াক্কা করছেনা। আমি ভদ্র শান্তিপ্রিয় এক সুনাগরিক ও একজন কলমসৈনিক। আমার পক্ষে লাঠিয়ালী, মোনাফেকী করা আদৌ সম্ভব নয়। 

আমি আশরাফুল মাখলুকাত শব্দের অর্থ জানি, শ্রেষ্টত্বের বিসর্জন আমি কখনো দেইনি, দেবনা, দেয়ার সম্ভাবনাও নাই। নতুবা এসব পরসম্পদলোভী, কুখ্যাতদের বিরুদ্ধে সশস্র সংঘাতে যেতাম। আমার পরম শ্রদ্ধেয় পিতা তাঁর জীবদ্দশায় আমাকে সুপথে চলার, মানুষের কল্যাণে কাজ করার নির্দেশ দিয়ে গেছেন। আমি আমার পিতার অতিবাধ্যগত এক সন্তান। 

আমি এক পেয়ালা চাও কখনো সঙ্গী-সাথীদের ছাড়া পান করিনা। দেশের চলমান প্রেক্ষাপটে, সত্য সুন্দর নিয়ে প্রকাশ প্রচার আমার পেশাগত দায়িত্ব। যুব-কিশোরদের সুন্দর ভবিষ্যত গড়ে তোলা, নষ্ট পথ থেকে ফেরাতে কাজ করা আমি দায়িত্ব হিসেবেই মনে করি।

অনেক কাজ করতে গিয়ে হয়তো কোন কাজে ভুল-ক্রুটি থাকতে পারে। তবে সমাজের সকল মানুষকে একত্রে করে সর্বদায় কাজ করার চেষ্টা করি, বিশেষ করে জনকল্যাণমূলক এবং জনবান্ধব কাজসমূহ। 

এক্ষেত্রে, এই সমাজের ও রাষ্ট্রের কাছে আমারও দাবি রয়েছে। আমি নিরলসভাবে অন্যের কাজ করে যাচ্ছি। অথচ আমার সততা ও ভদ্রতার সুযোগে কিছু জবর দখলকারী ব্যক্তি আমার সম্পত্তি ভোগ-দখল করে খাচ্ছে। আমি জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত এই সমাজের নিকট ও রাষ্ট্রের নিকট দাবি করে যাব বেআইনীভাবে জবর দখলকারীদের বিরুদ্ধে দেশের প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেয়া এবং আসল হকদার ব্যক্তি যেন তার সম্পত্তি ভোগ দখল করতে পারে তা নিশ্চিত করা।
 

মুক্তসংবাদ প্রতিদিন / কে. আলম

হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা মামুনুল হককে গ্রেফতার


এমএস.প্রতিদিন ডেস্ক:
রবিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ০২:৩৭
হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা মামুনুল হককে গ্রেফতার

ফাইল ছবি

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরীর সেক্রেটারি মামুনুল হককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া মাদ্রাসা থেকে আজ রবিবার বেলা ১২টার দিকে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানা যায়।

মামুনুল হককে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশের তেজগাঁও জোনের উপকমিশনার হারুন অর রশিদ। মামুনুল হককে তেজগাঁওয়ের উপ পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে রাখা হয়েছে।

মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালের একটি মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে বলে জানায় ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। 

মুক্তসংবাদ প্রতিদিন / কে. আলম
Share on Facebook
×